এসএসসি অর্থনীতি অধ্যায়ভিত্তিক গুরুত্বপূর্ণ সৃজনশীল জ্ঞানমূলক প্রশ্ন উত্তর

0
48

এসএসসি অর্থনীতি অধ্যায়ভিত্তিক গুরুত্বপূর্ণ

সৃজনশীল জ্ঞানমূলক প্রশ্ন উত্তর

১ম অধ্যায় : অর্থনীতির পরিচয়

১। অর্থনীতির সংজ্ঞা দাও।

উত্তর : মানুষের দৈনন্দিন অর্থনৈতিক কার্যাবলি এবং সীমিত সম্পদ ও অসীম অভাবের সমন্বয় সাধন সম্পর্কিত বিজ্ঞানকেই অর্থনীতি বলে।

২। অর্থনীতির মৌলিক নীতি কয়টি?

উত্তর : অর্থনীতির মৌলিক নীতি দশটি।

৩। অর্থনৈতিক কার্যাবলি কী?

উত্তর : মানুষ জীবিকা নির্বাহের জন্য যে কাজ করে থাকে তাকে অর্থনৈতিক কার্যাবলি বলে।

৪। অর্থনীতির ইংরেজি প্রতিশব্দ কী?

উত্তর : অর্থনীতির ইংরেজি প্রতিশব্দ Economics.

৫। বাণিজ্যবাদ কাকে বলে?

উত্তর : ঘোড়শ শতাব্দীর শেষ ভাগ থেকে অষ্টাদশ শতাণীর শেষ ভাগ পর্যন্ত ইংল্যান্ড, ফ্রান্স ও ইতালিতে আন্তঞ্জাতিক বাণিজ্যের যে প্রসার ঘটে তাকে বাণিজ্যবাদ বলে।

৬। মুদ্রাস্ফীতি কী?

উত্তর : উৎপাদন হির থেকে অল্প সময়ের মধ্যে দ্রব্যমূল্য ক্রমাগত বেড়ে যাওয়াকে মুদ্রাস্ফীতি কলী হয়।

৭। অর্থনীলির জনক কে?

উত্তর : অভিম স্মিথ।

৮। ভূমিবাণীদের মতে উৎপাদনশীল খাত কোনটি?

উত্তর : ভূমিবাদীদের মতে, কৃষিই হলো অন্যতম বা প্রধান উৎপাদনশীল খাত।

৯। বেকরি কাকে বলে?

উত্তর : কর্মক্ষম লোক প্রচলিত মজুরিতে কাজ করতে ইচ্ছুক কিন্তু কাজ না পাওয়ার অবস্থাকে বের কী হয়।

১০। রবিন্স প্রদত্ত অর্থনীতির জ্ঞাটি দাও।

উত্তর : ‘অর্থনীতি হলো এমন একটি বিজ্ঞান যা মানুষের অসীম অভাব এক বিকল্প ব্যবহারযোগ্য দুষ্প্রাপ্য উপকরণসমূরে মধ্যে সময় সাধনকারী কার্যাবলি আলোচনা করে’।

১১। অধ্যাপক মাশালের অর্থনীতির সংজ্ঞা দাও।

উত্তর: সংজ্ঞাটি হলো-‘অর্থনীতি মানবজীবনের সাধারণ কার্যাবলি আলোচনা করে’।

১২। অভাব নির্বাচন কী?

উত্তর : অভাবের গুরুত্ব বিবেচনা করে মানুষ যে অভাবগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পূরণ করে, তাকে অতৰি নিচিন বলে।

১৩। ধনতান্ত্রিক অর্থব্যবস্থার অপর নাম কী?

উত্তর : পুঞ্জিবাদী অর্থব্যবস্থা।

২য় অধ্যায় : অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ ধারণাসমূহ

১। চূড়ান্ত দ্রব্য কাকে বলে?

উত্তর : দূড়ান্ত দ্রব্য বলতে এমন দ্রব্যকে বোঝায় যা উৎপাদনের পর সরাসরি ভোগে ব্যবহৃত হয়।

২। উৎপাদিত সম্পদ কী?

উত্তর : প্রাকৃতিক ও মানবিক সম্পদ কাজে লাগিয়ে যে সম্পদ সৃষ্টি হয় তাকে উৎপাদিত সম্পদ বলা হয়। যেমন-যন্ত্রপাতি, কারখানা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইত্যাদি।

৩। তাপ বিদ্যুৎ কী?

উত্তর: গ্যাস, তেল, কয়লার সাহায্যে যে বিদ্যুৎ উৎপন্ন করা হয় তাকে তাপ বিদ্যুৎ বলে।

৪। সম্পদ কাকে বলে?

উত্তর : কোন উপাদান বা উপকরণকে যখন তার উপযোগ কে কাজে লাগিয়ে মানুষের চাহিদা এবং অভাব পূরণ করা হয় তখন তাকে সম্পদ বলে।

৫। বাংলাদেশে পানি প্রধান উৎস কয়টি? উত্তর- তিনটি।

৬। অর্থনৈতিক দ্রব্য মানে কি?

উত্তর : যেসব দ্রব্য পাওয়ার জন্য মানুষকে মূল্য দিতে হয় তাকে অনৈতিক দ্রব্য বলা হয়।

৭। সুযোগ ব্যয় কাকে বলে?

উত্তর : কোনো একটি দ্রব্য পাওয়ার জন্য দ্রব্যটির উৎপাদন যে পরিমাণ ত্যাগ করতে হয়, সেই ত্যাগকৃত পরিমাপই হলাে প্রথম দ্রব্যটির সুযোগ ব্যয়।

৮। সঞ্চয় কী?

উত্তর : আয়ের যে অংশ বর্তমানে ভোগ না করে ভবিষ্যতের জন্য রাখা হয় তাকে সঞ্চয় বলে।

৯। বিনিয়োগ কাকে বলে?

উত্তর : সঞ্চিত অর্থ যথন উৎপাদন বাড়ানোর কাজে ব্যবহৃত হয়, তখন তাকে বিনিয়োগ বলে।

১০। মানবিক সম্পদ কাকে বলে?

উত্তর : মানুষের মানবীয় গুণাবলীকে মানবিক সম্পদ লা হয়।

১১। অর্থনীতির জনক কে?

উত্তর : অ্যাডাম স্মিথ।

১২। আয় কী?

উত্তর : কোন ব্যক্তি তার মালিকানাধীন উৎপাদনের উপকরণকে উৎপাদন কাজে নিয়োজিত করে তার বিনিময়ে যা অর্জন করে তাই আয় ।

১৩। বাংলাদেশের মোট ভূখর শতকরা কতভাগ বনভূমি আছে?

উত্তর : ১১১ ভাগ।

১৪। দ্রব্য কাকে বলে?

উত্তর : মানুষের অভাব মেটানোর ক্ষমতাসম্পন্ন বস্তুগত ও অবস্তুগত সব জিনিসকে অর্থনীতিতে ঐব্য বলে।

১৫। মধ্যবর্তী দ্রব্য কাকে বলে?

উত্তর : যেসব দ্রব্য সরাসরি ভোগের জন্য ব্যবহার না করে উৎপাদনে উপকরণ হিসেবে ব্যবহার হয় তাকে মধ্যবর্তী দ্রব্য বলে।

১৬। স্থায়ী ভোগ্য দ্রব্য কী?

উত্তর : ফেসব ভোগ্য দ্রব্য স্থায়ীভাবে কোথাও অবস্থান করে তাকে স্থায়ী দ্রব্য বলে।

১৭। অবাধলভ্য দ্রব্য কী?

উত্তর : যেসব দ্রব্য বিনা পরিশ্রম ও বিনামূল্যে পাওয়া যায় সেগুলোকে অবাধল প্ৰব্য বলা হয়।

১৮। পণ্য ?

উত্তর: যেসব দ্রব্য ও অবস্তুগত সেবা উপযোগসম্পন্ন এবং বিক্রয়যোগ্য, তাদেরকে পণ্য বলে।

৩য় অধ্যায় : উপযোগ, চাহিদা, যোগান ও ভারসাম্য

১। উপযোগ কাকে বলে?

উত্তর : অর্থনীতিতে কোনো প্রব্যের অভাব পূরণের ক্ষমতাকে উপযোগ বলে।

২। চাহিদা কাকে বলে?

উত্তরঃ একজন ভোক্তার কোনো দ্রব্য পাওয়ার আকাক্ষার পাশাপাশি যখন সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ করার সামর্থ্য ও ইচ্ছা থাকে তাকে চাহিদা বলে।

৩। প্রান্তিক উপযোগ কী?

উত্তর : কোনো দ্রব্য বা সেবার অতিরিক্ত এক একক ভোগ করলে মোট উপযোগের পরিবর্তন হয় তাকে প্রান্তিক উপযোগ বলে।

৪। ভোক্তা কাকে বলে?

উত্তর : কোনো অবাধ সহজলভ্য দ্রব্য ছাড়া অন্য সব দ্রব্য ভোগ রার জন্য যে ব্যক্তি অর্থ ব্যয় করতে প্রস্তুত থাকে তাকে ভোক্তা বলে।

৫। চাহিদা বিধিটি লিখ।

উত্তর : কোনো প্রবোর দমের সাথে তার চাহিদার পরিমাণের সম্পর্ককে যে বিধির সাহায্যে ব্যাখ্যা করা হয় তাকে চাহিদা বিধি বলে।

৬। যোগান কাকে বলে?

উত্তর : একটি নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট নামে বিক্রেতা একটি পণ্যের যে পরিমাণ বিক্রি করতে প্রস্তুত থাকে, তাকে যৌগান বলে।

৭। দাম ও যোগানের সম্পর্ক কেমন?

উত্তর : দাম ও যোগানের সম্পর্ক সমমুখী।

৮। ভারসাম্য পমি কাকে বলে?

উত্তর : যে দামে একটি নির্দিষ্ট দ্রব্যের চাহিদা ও যোগান পরস্পর সমান হয় তাকে ভারসাম্য দাম বলে।

৯। ক্রম হ্রাসমান প্রাপ্তিক উপযোগ বিধি কী?

উত্তর : ভোগের একক বৃদ্ধির ফলে প্রান্তিক উপযোগ কমে যাওয়ার প্রবণতাই মহাসমান উপযোগলের সম্পর্ক সমমুখী।

১০। ভোগ কাকে বলে?

উত্তর : অর্থনীতিতে মানুষের অভাব পূরণের জন্য অন্য কোনো দ্রব্যের উপযোগ নিঃশেষ করাকে ভোগ বলে।

১১। গড় উপযোগ কী?

উত্তর : কোনো নির্দিষ্ট সময়ে একজন ভোক্তা ভোগকৃত দ্রব্য থেকে একক প্রতি যে উপযোগ পায় তাকে গড় উপযোগ বলে।

১২। যোগান বিথি কী?

উত্তর : যে বিধি দমের সাথে দ্রব্যের যোগানের সম্পর্ক প্রকাশ করে তাকে যোগান বিধি বলে।

১৩। দাম ও যোগানের সম্পর্ক কেমন?

উত্তর : দাম ও যোগানের সম্পর্ক প্রশ্ন সমমুখী।

৪র্থ অধ্যায় : উৎপাদন ও সংগঠন

১। মোট উৎপাদন কাকে বলে?

উত্তর : বিভিন্ন উপকরণ নিয়োগের দ্বারা যে পরিমাণ উৎপাদন পাওয়া যায় তাকে মোট উৎপাদন বলে।

২। রূপগত উপযোগ কাকে বলে?

উত্তর : প্রব্যের রূপ পরিবর্তনের মাধ্যমে নতুন দ্রব্য উৎপাদন করাকে রূপগত উপযোগ বলে।

৩। উৎপাদন কী?

উত্তর : উপকরণ বা প্রাথমিক দ্রব্য ব্যবহার করে নতুন কোনো দ্রব্য বা উপযোগ সৃষ্টি করাকে উৎপাদন বলে।

৪। মূলধন কী?

উত্তর : যেসব দ্রব্যসামগ্রী মানুষের শ্রমের দ্বারা উৎপাদিত এক সরাসরি ভোগের জন্য ব্যবহৃত না হয়ে পুনরায় উৎপাদন কাজে ব্যবহৃত হয়, তাদেরকে মূলধন বলে।

৫। উদ্যোক্তা কী?

উত্তর : যিনি উৎপাদনের উপকরণগুলাের মধ্যে সুষ্ঠুভাবে সমন্বয়ের কাজ করেন তাকে উদ্যোক্তা বলা হয়।

৬। শ্রম কাকে বলে?

উত্তর : উৎপাদন কাজে নিয়ােজিত মানুষের সব ধরনের শারীরিক ও মানসিক পরিশ্রম, যার বিনিময়ে অর্থ উপার্জন করা যায় তাকে অর্থনীতিতে শ্রম বলে।

৭। প্রকাশ্য ব্যয় ?

উত্তর : কোনো উৎপাণী প্রতিষ্ঠান উপকরণ ভাড়া বা ক্রয়ের জন্য দৃশ্যমান যে ব্যয় করে তার সমষ্টিকে প্রকাশ্য ব্যয় বলে।

৮। ভূমি কী?

উত্তর : ভূপৃষ্ঠসহ প্রকৃতির যেসব অবাধ দান উৎপাদনের কাজে লাগে তাকেই একত্রে ভূমি বলে।

৯। গঠন কাকে বলে?

উত্তর : কোনো কিছু উৎপাদনের জন্য ভূমি, শ্রম ও মূলধনকে একত্র করা ও সময়ের মাধ্যমে উৎপাদন কাজ পরিচালনা করাকে সংগঠন বলে।

১০। উৎপাদনের উপকরণ কয় প্রকার?

উত্তর : ৪ প্রকার।

১১। গড় উৎপাদন কাকে বলে?

উত্তর : মোট উৎপাদনের পরিমাণকে মোট উপকরণ বা উপাদান দ্বারা ভাগ করলে গড় উৎপাদন পাওয়া যায়।

১২। সমন্বয়কারী কাকে বলে?

উত্তর : যিনি উৎপাদন ক্ষেত্রে ভূমি, শ্রম, মূলধন ইত্যাদি উপকরণের মধ্যে সমন্বয় করেন, তাকে সমন্বয়কারী বলা হয়।

১৩। বিনিয়োগ :

উত্তর : সঞ্চিত অর্থ যখন উৎপাদন বাড়ানোর কাজে ব্যবহৃত হয় তখন তাকে বিনিয়োগ বলে।

১৪। প্রান্তিক উৎপাদন কী?

উত্তর: প্রান্তিক উৎপাদন হচ্ছে অতিরিক্ত এক একক উৎপাদনের উপকরণ পরিবর্তনের ফলে মোট উৎপাদনের যে পরিবর্তন হয়।

৫। অপ্রকাশ্য ব্যয় কী?

উত্তর : উদ্যোক্তার নিজের শ্রমের মূল্য, অন্যান্য ব্যয় ও স্বনিয়োজিত সম্পদের খরচকে অপ্রকাশ্য ব্যয় বলে।

 

৬ষ্ঠ অধ্যায়: জাতীয় আয় ও এর পরিমাপ

১। CCA-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর : Capital Consumption Allowance

২। আয় পদ্ধতিতে জাতীয় আয় নির্ণয়ের সূত্রটি লেখো।

উত্তর : আয় পদ্ধতিতে জাতীয় আয় = মোট খাজনা + মোট মজুরি + মোট সুদ + মোট মুনাফা

৩। নিট জাতীয় আয় কাকে বলে?

উত্তর : কোনে নির্দিষ্ট সময়ে কোনো অর্থনীতিতে চুড়ান্ত পর্যায়ের দ্রব্য ও সেবার আর্থিক মূল্য। থেকে মূলধনের ব্যবহারজনিত অবচয় ব্যয় বাদ দিলে যা থাকে তাকে নিট জাতীয় আয় বলে।

৪। NNP-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর: Net National Product.

৫। GNI-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর: Gross National Income.

৬। মোট দেশজ উৎপদিন কাকে বলে?

উত্তর: একটি নির্দিষ্ট সময়ে (সাধারণত এক বছরে) একটি দেশের ভৌগোলিক সীমার মধ্যে মোট যে পরিমাণ চুড়ান্ত দ্রব্য ও সেবা উৎপাদন প্রা হয় তার বাজার মূল্যের সমষ্টিকে মোট দেশজ উৎপাপন বলে।

৭। জাতীয় আয় কী?

উত্তর: কোনো নির্দিষ্ট সময়ে কোনো দেশের নাগরিকগণ কর্তৃক যে পরিমাণ চূড়ান্ত দ্রব্য ও সেবা উৎপন্ন হয় তার বাজার মূল্যের সমষ্টিকে জাতীয় আয় বলে।

৮। GDP-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর : Gross Domestic Product.

৯। GNP-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর : Gress National Product.

১০। থানা কী?

উত্তর : অর্থনীতিতে ভূমি বা সীমাবদ্ধ যোগান বিশিষ্ট সম্পদ ব্যবহারের জন্য তার মালিককে যে অর্থ প্রদান করা হয় তাকে খাজনা বলে।

১১। মাথাপিছু আয় কী?

উত্তর : মাথাপিছু আয় বলতে জনপ্রতি বার্ষিক আয়কে বোঝায়?

১২। মাথাপিছু জিডিপি এর সূত্রটি লেখ।

উত্তর : মাথাপিছু জিডিপি = (কোন নির্দিা বছরে মোট দেশজ উৎপাদন/ঐ বছরের মধ্যে সময়ের মােট জনসংখ্যা)

৯ম অধ্যায় : বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক প্রসঙ্গ

১। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি কাকে বলে?

উত্তর : একটি নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে অর্থনৈতিক কাঠামোর কোনো পরিবর্তন ছাড়াই প্রকৃত জাতীয় আয়ের পাশাপাশি প্রকৃত মাথাপিছু আয়ের বৃদ্ধি ঘটলে তাকে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বলে।

২। এসএমএস-এর পূর্ণরূপ কী?

উত্তর : সোসাইটি ফর সোশ্যাল সার্ভিসে।

৩। শক্তি ফাউন্ডেশন কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

উত্তর : ১৯৯২ সালে।

৪। দারিদ্র্য কাকে বলে?

উত্তর : দাত্রি কলতে এমন এক অবস্থাকে বোঝায় যেখানে মানুষের মৌলিক চাহিদা যেমন-অন্ন, স্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা ইত্যাদি অভাব পূরণ হয় না।

৫। বেকারত্বের সংজ্ঞা দাও।

উত্তর : কর্মক্ষম লোক প্রচলিত মজুরিতে কাজ করতে ইচ্ছুক থাকা সত্ত্বেও কাজ না পাওয়ার অবস্থাকে বেকারত্ব বলে।

৬। মৌসুমি বেকারত্ব কী?

উত্তর: শ্ৰমিক যদি বছরের কোনো বিশেষ সময়ে কর্মে নিয়োজিত থাকে এবং অন্য সময়ে বেকার থাকে তবে তার বেকারত্বকে মৌসুমি বেকারত্ব বলে।

৭। উন্নয়নশীল দেশ কী?

উত্তর : পৃথিবীর যেসব দেশে অর্থনৈতিক উন্নয়নমূলক কাজ হচ্ছে এবং উন্নয়নের যথেষ্ট সুযোগ আছে সেসব দেশই উন্নয়নশীল দেশ।

৮। দারিদ্র্যের দুষ্টচক্র ধারণাটির প্রবল কে?

উত্তর : অধ্যাঙ্ক ব্যাগনার নার্স।

৯। মানবসম্পদ কাকে বলে?

উত্তর : জনসংখ্যার একটি অংশ যখন শিক্ষা ও দক্ষতা অর্জনের মাধ্যমে শ্রমশক্তিতে পরিণত হয়। তখন তাদেরকে মানবসম্পদ বলে।

১০। NGO-এর পূর্ণরূপ লেখো।

উত্তর : Non-Government Organisation,

Download From Google Drive

Download

আরো পড়ুনঃ-

Download From Yandex

Download