নবম-দশম শ্রেণির রসায়ন তৃতীয় অধ্যায় এর জ্ঞানমূলক সকল প্রশ্ন উত্তর একসাথে

0
236

নবম-দশম শ্রেণির রসায়ন তৃতীয় অধ্যায় এর জ্ঞানমূলক

সকল প্রশ্ন উত্তর একসাথে

তৃতীয় অধ্যায়ঃ- পদার্থের গঠন

প্রশ্ন-১ পরমানু কাকে বলে?

উত্তর :- পরমাণু হলো মৌলিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণা।

প্রশ্ন -২ অনু কাকে বলে?

উত্তর :- দুই বা দুইয়ের অধিক সংখ্যক পরমাণু পরস্পরের সাথে রাসায়নিক বন্ধন এর মাধ্যমে যুক্ত থাকলে তাকে অনু বলে।

প্রশ্ন -৩ প্রতীক কাকে বলে?

উত্তর :- কোন মৌলের ইংরেজি বা ল্যাটিন নামের সংক্ষিপ্ত রূপকে প্রতীক বলে।

প্রশ্ন -৪ পারমাণবিক সংখ্যা কী?

উত্তর :- কোন মৌলের একটি পরমাণুর নিউক্লিয়াসে উপস্থিত প্রোটনের সংখ্যাকে ওই মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা বলা হয়।

প্রশ্ন -৫ ভরসংখ্যা কাকে বলে?

উত্তর :- কোন পরমাণুতে উপস্থিত প্রোটন ও নিউট্রন সংখ্যার যোগফলকে ওই পরমাণুর ভর সংখ্যা বলে।

প্রশ্ন -৬ বর্ণালী কী?

উত্তর :- ইলেকট্রন উচ্চ শক্তি স্তর থেকে নিম্ন শক্তিস্তরে যাবার সময় যে আলো বিকিরণ করে তাকে প্রিজমের মধ্য দিয়ে প্রবেশ করালে পারমাণবিক বর্ণালী সৃষ্টি হয়। প্রশ্ন -৭ আইসোটোপ কাকে বলে?

উত্তর :-যে সকল পরমাণুর প্রোটন সংখ্যা সমান কিন্তু ভর সংখ্যা ও নিউট্রন সংখ্যা ভিন্ন তাদেরকে একে অপরের আইসোটোপ বলে।

প্রশ্ন -৮ তেজস্ক্রিয় আইসোটোপ কী?

উত্তর :- কিছু কিছু আইসোটোপ হয়েছে যাদের নিউক্লিয়াস স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভেঙে আলফা রশ্মি, বিটা রশ্মি, গামা রশ্মি ইত্যাদি নির্গত করে তাদেরকে তেজস্ক্রিয় আইসোটোপ বলে।

প্রশ্ন -৯• বোর পরমাণু মডেলের ভিত্তি কী?

উত্তর :- ম্যাক্স প্ল্যাঙ্কের কোয়ান্টাম তত্ত।

প্রশ্ন -১০ কত সালে বিজ্ঞানী রাদারফোর্ড পরমাণুর গঠন সম্পর্কে মডেল প্রদান করেন।

উত্তর :- ১৯১১ খ্রিস্টাব্দে।

প্রশ্ন -১১ কত সালে বিজ্ঞানী নীলস বোর পরমাণুর মডেল প্রদান করেন?

উত্তর :- ১৯১৩ খ্রিস্টাব্দে।

প্রশ্ন -১২ এ পর্যন্ত কতটি মৌল আবিষ্কৃত হয়েছে?

উত্তর :- ১১৮টি

প্রশ্ন -১৩ প্রকৃতিতে কতটি মৌল পাওয়া যায়?     উত্তর :-৯৮ টি

প্রশ্ন -১৪ শরীরে মোট কয় ধরনের ভিন্ন ভিন্ন মৌল আছে?

উত্তর :- ২৬ ধরনের।

প্রশ্ন -১৫ পরমাণু কতটি কণা দিয়ে তৈরি ও কি কি?

উত্তর :- তিনটি। যথা :- ইলেকট্রন, প্রোটন ও নিউট্রন।

প্রশ্ন -১৬ ইলেকট্রন এর আধানের পরিমান কত?

উত্তর :- -1.60×10 – 19 কুলম্ব।

প্রশ্ন -১৭ পারমাণবিক সংখ্যাকে কি দিয়ে প্রকাশ করা হয়?

উত্তর :- Z দ্বারা প্রকাশ করা হয়।

প্রশ্ন -১৮ অরবিটাল গুলোকে কি নামে আখ্যায়িত করা হয়?

উত্তর :- s,p,d,f ইত্যাদি।

প্রশ্ন -১৯ হাইড্রোজেন এর কতটি আইসোটোপ রয়েছে? উত্তর :- সাতটি।

প্রশ্ন -২০ রক্তের লিউকোমিয়া রোগের চিকিৎসায় কোন আইসোটোপ ব্যবহৃত হয়?

উত্তর :- 32 p এর ফসফেট।

প্রশ্ন -২১ ফসিলের বয়স নির্ধারণে কোন আইসোটোপ ব্যবহার করা হয়?

উত্তর :- C-14।

প্রশ্ন -২২ প্রতিটি প্রধান শক্তিস্তরের সর্বোচ্চ ইলেকট্রন ধারণ ক্ষমতা কত?

উত্তর :-2n^2।

প্রশ্ন -২৩ ক্যান্সার নিরাময় কোন তেজস্ক্রিয় আইসোটোপ ব্যবহার করা হয়?

উত্তর :- 131 আয়োডিন সমৃদ্ধ দ্রবন পান করানো হয়।

প্রশ্ন -২৪ টিউমারের উপস্থিতি নির্ণয় ও নিরাময় কোন তেজস্ক্রিয় আইসোটোপ ব্যবহার করা হয়?

উত্তর :- 60 কোবাল্ট (Co)।

প্রশ্ন -২৫ বাংলাদেশে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপিত হয়েছে কোথায়?

উত্তর :- রূপপুরে।