নবম-দশম শ্রেণির জীব বিজ্ঞান জীবন পাঠ এর বহুনির্বাচনি ও সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

0
288

নবম-দশম শ্রেণির জীব বিজ্ঞান জীবন পাঠ এর বহুনির্বাচনি

ও সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর

এসএসসি জীববিজ্ঞান ১ম অধ্যায় জীবন পাঠ  MCQ প্রশ্ন উত্তর

১. Bios ও logos শব্দ দুটি কোন ভাষার?

ক. ফরাসী

খ. ল্যাটিন

গ. গ্রীক

ঘ. জার্মান

উত্তর : খ. ল্যাটিন

২. অ্যারিস্টটল কোন দেশের অধিবাসী ছিলেন?

ক. জার্মানী

খ. গ্রীস

গ. আমেরিকা

ঘ. ফ্রান্স

উত্তর : খ. গ্রীস

৩. অ্যারিস্টটল খ্রীষ্টপূর্ব কত সালে জন্মগ্রহণ করেন?

ক. ৩৮১

খ. ৩৮২

গ. ৩৮৩

ঘ. ৩৮৪

উত্তর : ঘ. ৩৮৪

৪. সৃষ্টি জগতে জীবকোষের মধ্যে কোন বিষয়টি একটি রহস্যপূর্ণ বিষয়?

ক. শক্তি উৎপাদন

খ. প্রাণের স্পন্দন

গ. জৈবিক ক্রিয়া

ঘ. পুষ্টি গ্রহণ

উত্তর : খ. প্রাণের স্পন্দন

৫. অ্যারিস্টটল কোন দেশের নাগরিক ছিলেন?

ক. রোম

খ. ফ্রান্স

গ. গ্রীক

ঘ. ইতালী

উত্তর : গ. গ্রীক

৬. জীববিজ্ঞানের প্রধান দুটি শাখা কী কী?

ক. জড় ও জীব

খ. কৃষি ও বল

গ. উদ্ভিদ ও প্রাণী

ঘ. পদার্থ ও রসায়ন

উত্তর : গ. উদ্ভিদ ও প্রাণী

৭. জীবদেহের বাহ্যিক ও অভ্যন্তরীণ গঠন সম্পর্কে কোন শাখায় আলোচনা করা হয়?

ক. মরফোলজি

খ. ট্যাক্সোনোমি

গ. ফিজিওলজি

ঘ. হিস্টোলজি

উত্তর : ক. মরফোলজি

৭. নিচের কোনটি ভৌত জীববিজ্ঞানের অন্তর্ভুক্ত বিষয়?

ক. জিন প্রযুক্তি

খ. প্রাণরসায়ন

গ. পরজীবীবিদ্যা

ঘ. ট্যাক্সোনমি

উত্তর : ঘ. ট্যাক্সোনমি

৮. জীবদেহের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গের জৈব রাসায়নিক কার্যাদি হয় কোন শাখায়?

ক. শারীরবিদ্যা

খ. জীবভূগোল

গ. বিবর্তনবিদ্যা

ঘ. ভ্ৰূণবিদ্যা

উত্তর : ক. শারীরবিদ্যা

৯. কোন শাখায় টিস্যুর গঠন, বিন্যাস ও কার্যাবলি আলোচনা হয়?

ক. এমব্রায়োলজি

খ. হিস্টোলজি

গ. সাইটোলজি

ঘ. ইকোলজি

উত্তর : খ. হিস্টোলজি

১০. ভূণের পরিসস্ফুটণ নিয়ে আলোচনা করা হয় কোন শাখায়?

ক. ফিজিওলজি

খ. মরফোলজি

গ. এমব্রায়োলজি

ঘ. সাইটোলজি

উত্তর : গ. এমব্রায়োলজি

১১. জীবের ধরন অনুসারে জীববিজ্ঞানকে কয়টি শাখায় ভাগ করা হয়?

ক. দুইটি

খ. তিনটি

গ. চারটি

ঘ. পাঁচটি

উত্তর : ক. দুইটি

১২. সাইটোলজিতে নিচের কোন বিষয়টি আলোচনা করা হয়?

ক. জীবের শ্রেণিবিন্যাস

খ. জীব কোষের গঠন

গ. জীবের বিবর্তন

ঘ. টিস্যুর গঠন

উত্তর : খ. জীব কোষের গঠন

১৩. জিন ও বংশগতির ধারা সম্পর্কে কোন শাখায় আলোচনা করা হয়?

ক. হিস্টোলজি

খ. এন্ডোক্রাইনোলজি

গ. জেনেটিক্স

ঘ. ফার্মেসি

উত্তর : গ. জেনেটিক্স

১৪. প্রাকৃতিক পরিবেশের সাথে জীবের সম্পর্ক বিষয়ক বিজ্ঞান কোনটি?

ক. অঙ্গসংস্থানবিদ্যা

খ. বাস্তুবিদ্যা

গ. শারীরবিদ্যা

ঘ. জীবভূগোল

উত্তর : খ. বাস্তুবিদ্যা

১৫. এন্ডোক্রাইনোলজিতে কী নিয়ে আলোচনা করা হয়?

ক. এনজাইম

খ. হরমোন

গ. যকৃত

ঘ. কোষ

উত্তর : খ. হরমোন

১৬. জীবের ভৌগলিক বিস্তারের সাথে ভূমণ্ডলের শ্রেণিবিভাগ সম্পর্কিত বিদ্যা কোনটি?

ক. অনুজীববিজ্ঞান

খ. জীবপ্রযুক্তি

গ. জীবভূগোল

ঘ. জিনতত্ত্ব

উত্তর : গ. জীবভূগোল

১৭. জীবাশ্ম সম্পর্কে আলোচনা করা হয় জীববিজ্ঞানের কোন শাখায়?

ক. বিবর্তনবিদ্যা

খ. বায়োইনফরমেটিকস

গ. হিস্টোলজি

ঘ. প্রত্নতত্ত্ববিদ্যা

উত্তর : ঘ. প্রত্নতত্ত্ববিদ্যা

১৮. জীববিজ্ঞানের কোন শাখায় কীটপতঙ্গ নিয়ে আলোচনা করা হয়?

ক. এন্টোমোলজি

খ. ইকোলজি

গ. এন্ডোক্রাইনোলজি

ঘ. মাইক্রোবায়োলজি

উত্তর : এন্টোমোলজি

১৯. ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক সম্পর্কে জানা যায় কোন বিজ্ঞানে?

ক. পরজীবীবিদ্যায়

খ. কোষবিদ্যায়

গ. কীটতত্ত্বে

ঘ. অণুজীববিজ্ঞানে

উত্তর : ঘ. অণুজীববিজ্ঞানে

২০. মানুষসহ অন্যান্য প্রাণির জীবন, রোগ, প্রতিকার, প্রতিরোধ সম্পর্কিত বিজ্ঞান কোনটি?

ক. ভ্রূণবিদ্যা

খ. শারীরবিদ্যা

গ. চিকিৎসাবিদ্যা

ঘ. জিন প্রযুক্তি

উত্তর : গ. চিকিৎসাবিদ্যা

২১. জীবের প্রাণরাসায়নিক কার্যাবলী, রোগ ইত্যাদি সম্পর্কিত বিজ্ঞান কোনটি?

ক. কোষবিদ্যা

খ. চিকিৎসাবিজ্ঞান

গ. জিনপ্রযুক্তি

ঘ. প্রাণরসায়ন

উত্তর : ঘ. প্রাণরসায়ন

২২. কীটপতঙ্গ ও পরজীবী সম্পর্কে আলোচনা করা হয় কোন শাখায়?

ক. ফাইকোলজি ও মাইকোলজি

খ. এমব্রায়োলজি ও এন্টোমোলজি

গ. প্যারাসাইটোলজি ও এন্টোমোলজি

ঘ. এন্টোমোলজি ও ফাইকোলজি

উত্তর : গ. প্যারাসাইটোলজি ও এন্টোমোলজি

২৩. আমাদের চারপাশে যা আছে তার সবকিছু নিয়ে আলোচনা হয় ফলিত জীববিদ্যার কোন শাখায়?

ক. বনবিজ্ঞান

খ. পরিবেশ বিজ্ঞান

গ. বন্যপ্রাণিবিদ্যা

ঘ. জীবপ্রযুক্তি

উত্তর : খ. পরিবেশ বিজ্ঞান

২৪. Sceanography-তে কী নিয়ে আলোচনা করা হয়?

ক. পরিবেশ নিয়ে

খ. বন্যপ্রাণি নিয়ে

গ. সমুদ্র সম্পদ নিয়ে

ঘ. জীবপ্রযুক্তি

উত্তর : গ. সমুদ্র সম্পদ নিয়ে

২৫. বনসম্পদ ব্যবস্থাপনা ও সংরক্ষণ সম্পর্কিত বিজ্ঞান কোনটি?

ক. ফিশারিজ

খ. মৃত্তিকা বিজ্ঞান

গ. ফরেস্ট্রি

ঘ. বায়োকেমিস্ট্রি

উত্তর : গ. ফরেস্ট্রি

২৬. মানুষ ও পরিবেশের কল্যাণে জীব ব্যবহারের প্রযুক্তি আলোচিত হয় কোনটিতে?

ক. কৃষিবিজ্ঞান

খ. প্রাণরসায়ন

গ. চিকিৎসা বিজ্ঞান

ঘ. জীবপ্রযুক্তি

উত্তর : জীবপ্রযুক্তি

২৭. ঔষধশিল্প ও প্রযুক্তি বিষয়ক জ্ঞান কোনটি?

ক. ফার্মেসি

খ. জিনপ্রযুক্তি

গ. অণুজীব বিজ্ঞান

ঘ. প্রাণরসায়ন

উত্তর : ক. ফার্মেসি

২৮. মালিহা সুন্দরবনে গিয়ে বাঘ, হরিণ, কুমির, বানর ইত্যাদি প্রাণী দেখলো। সে এগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানবে কোন বিজ্ঞানে?

ক. অণুজীব বিজ্ঞানে

খ. বনবিজ্ঞান

গ. পরিসংখ্যানবিদ্যা

ঘ. বন্যপ্রাণিবিদ্যা

উত্তর : ঘ. বন্যপ্রাণিবিদ্যা

২৯. কম্পিউটার প্রযুক্তিনির্ভর জীববিজ্ঞান ভিত্তিক তথ্য আলোচিত হয় কোনটিতে?

ক. এন্ডোক্রাইনোলজি

খ. বায়োটেকনোলজি

গ. বায়োস্ট্যাটিসটিকস

ঘ. বায়োইনফরমেটিকস্

উত্তর : ঘ. বায়োইনফিরমেটিকস্

জীবন পাঠ বহুনির্বাচনি

৩০. শ্রেণিবিন্যাসে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন কোন বিজ্ঞানী?

ক. রবার্ট হুক

খ. মেডেল

গ. লিনিয়াস

ঘ. ওয়াটসন

উত্তর : গ. লিনিয়াস

৩১. বিজ্ঞানী ক্যারোলাস লিনিয়াস উপসালা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোন বিষয়ের অধ্যাপক হিসেবে নিযুক্ত হন?

ক. সাইটোলজি

খ. হিস্টোলজি

গ. অ্যানাটমি

ঘ. ইকোলজি

উত্তর : গ. অ্যানাটমি

৩২. জীবের পূর্ণ শ্রেণিবিন্যাসের ভিত্তি স্থাপন করেন কে?

ক. জর্জ বেনথাম

খ. ক্যারোলাস লিনিয়াস

গ. ওয়াটসন

ঘ. অ্যারিস্টটল

উত্তর : খ. ক্যারোলাস লিনিয়াস

৩৩. আজ পর্যন্ত উদ্ভিদের কত প্রজাতির নামকরণ করা হয়েছে?

ক. চার লক্ষ

খ. আট লক্ষ

গ. তের লক্ষ

ঘ. পনের লক্ষ

উত্তর : ক. চার লক্ষ

৩৪. জীবজগত কে একটি স্বাভাবিক নিয়মে শ্রেণিবিন্যাস করার জন্য জীবিজ্ঞানের যে স্বতন্ত্র শাখা গড়ে উঠেছে তার নাম কি?

ক. হিস্টোলজি

খ. জেনেটিক্স

গ. ট্যাক্রোনমি

ঘ. বায়োইনফরমেটিকস্

উত্তর : ট্যাক্রোনমি

৩৫. বিজ্ঞানী ক্যারোলাস লিনিয়াস কত সালে উপসালা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি লাভ করেন?

ক. ১৭০৭

খ. ১৭৩৫

গ. ১৭৫৮

ঘ. ১৭৭৮

উত্তর : খ. ১৭৩৫

৩৬. বিজ্ঞানী ক্যারোলাস লিনিয়াস উপসালা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কোন বিষয়ের উপর ডিগ্রি লাভ করেন?

ক. শ্রেণিবিন্যাস বিদ্যা

খ. চিকিৎসাবিদ্যা

গ. রসায়নিবিদ্যা

ঘ. পদার্থবিদ্যা

উত্তর : খ. চিকিৎসাবিদ্যা

৩৭. বিজ্ঞানী ক্যারোলাস লিনিয়াস কত সালে মৃত্যু বরণ করেন?

ক. ১৭০৭

খ. ১৭৩৫

গ. ১৭৫৮

ঘ. ১৭৭৮

উত্তর : ক. ১৭০৭

৩৮. ক্যারোরাস লিনিয়াস কোন দেশের প্রকৃতি বিজ্ঞানী ছিলেন?

ক. জার্মানী

খ. ইতালী

গ. সুইডেন

ঘ. আমেরিকা

উত্তর : গ. সুইডেন

৩৯. ক্যারোলাস লিনিয়াস জীবজগতকে কয়টি ভাগে ভাগ করেন?

ক. ২

খ. ৩

গ. ৪

ঘ. ৫

উত্তর : ক. ২

৪০. দ্বিপদ নামকরণের প্রবর্তক কে?

ক. লিনিয়াস

খ. ফ্লেমিং

গ. ক্যালভিন

ঘ. ডারউইন

উত্তর : ক. লিনিয়াস

৪১. ক্যারোলাস লিনিয়াস কোন গ্রন্থে জীবের দ্বিপদ নামকরণ নীতি প্রবর্তন করেন?

ক. Origin of Species

খ. Historia Naturae

গ. Birds of India

ঘ. Systema Naturac

উত্তর : ঘ. Systema Naturac

৪২. ক্যারোলাস লিনিয়াস তার Systema Naturae গ্রন্থের কততম সংস্করণে দ্বিপদ নামকরণ নীতি প্রবর্তন করেন?

ক. ৭ম

খ. ৮ম

গ. ৯ম

ঘ. ১০ম

উত্তর : ঘ. ১০ম

৪৩. ক্যারোলাস লিনিয়াস কত সালে দ্বিপদ নামকরণ প্রবর্তন করেন?

ক. ১৭৫৬

খ. ১৭৫৭

গ. ১৭৫৮

ঘ. ১৭৫৯

উত্তর : গ. ১৭৫৮

৪৪. পারস্পরিক সাদৃশ্য ও বৈসাদৃশ্যের উপর ভিত্তি করে জীবকে বিভিন্ন দলে বিভক্তকরণকে কী বলে?

ক. প্রজাতিকরণ

খ. উপবিন্যাস

গ. অনুকরণ

ঘ. শ্রেণিবিন্যাস

উত্তর : ঘ. শ্রেণিবিন্যাস

৪৫. লিনিয়াসের যুগ থেকে বিংশ শতাব্দীর মাঝ পর্যন্ত জীবজগতকে কয়টি রাজ্যে শ্রেণিবিন্যাস করা হতো?

ক. ২

খ. ২

গ. ৩

ঘ. ৪

উত্তর : খ. ২

৪৬. জীবজগতকে ফাইড কিংডমে ভাগ করার প্রস্তাব করেন কে?

ক. ক্যারোলাস লিনিয়াস

খ. বেনথাম ও হুকার

গ. আর এইচ হুইটটেকার

ঘ. মারগুলিস

উত্তর : গ. আর এইচ হুইটটেকার

৪৭. হুইটটেকার কত সালে ফাইভ কিংডম পদ্ধতি প্রস্তাব করেন?

ক. ১৯৬৬

খ. ১৯৬৭

গ. ১৯৬৮

ঘ. ১৯৬৯

উত্তর : ঘ. ১৯৬৯

৪৮. হুইটটেকার এর শ্রেণিবিন্যাসের পরিবর্তিত ও বিস্তারিত রুপ দেন কে?

ক. লিনিয়াস

খ. মারগুলিস

গ. স্মিথ

ঘ. বেনথাম

উত্তর : খ. মারগুলিস

৪৯. মাশরুমের কোষে নিচের কোনটি অনুপস্থিত থাকে?

ক. নিউক্লিয়াস

খ. ক্লোরোপ্লাস্ট

গ. মাইটোকন্ড্রিয়া

ঘ. রাইবোজোম

উত্তর : খ. ক্লোরোপ্লাস্ট

৫০. উন্নত টিস্যুতন্ত্র বিদ্যমান কোন রাজ্যে?

ক. মনেরা

খ. প্রোটিস্টা

গ. প্ল্যান্টি

ঘ. ফানজাই

উত্তর : গ. প্ল্যান্টি

PDF Detail  

Titleনবম-দশম জীব বিজ্ঞান
Author
Size2.39 MB
Number of Pages11
CategoriesPDF Download
Downloading status FREE 

সাইজঃ- 2.39 MB

পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ 11

বই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে অনলাইন লাইভ প্রিভিউ দেখে নিন তারপর সিদ্ধান্ত নিন ডাউনলোড করবেন কিনা।

Live Preview এখান থেকে Scroll করে দেখতে পারেন।

আরো পড়ুনঃ-

Download From Google Drive

Download

Download From Yandex

Download

👀 প্রয়োজনীয় মূর্হুতে 🔍খুঁজে পেতে শেয়ার করে রাখুন.! আপনার প্রিয় মানুষটিকে “send as message”এর মাধ্যমে শেয়ার করুন। হয়তো এই গুলো তার অনেক কাজে লাগবে এবং উপকারে আসবে।