Wednesday, May 12, 2021
Homeবাংলা সাহিত্য ও ব্যাকরণলেখক ও কবি পরিচিতি পিডিএফ ডাউনলোড

লেখক ও কবি পরিচিতি পিডিএফ ডাউনলোড

 লেখক ও কবি পরিচিতি  

পিডিএফ ডাউনলোড

 

v  বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

১. বাংলা সাহিত্যের ১ম সার্থক ঔপন্যাসিক = বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (দুর্গেশনন্দিনী – ১৮৬৫ সালের মার্চ মাসে প্রকাশিত)।

২. বঙ্কিমচন্দ্রের প্রথম উপন্যাসের নাম = Rajmohon’s Wife (১৮৬২)।

৩. বাংলা সাহিত্যে বঙ্কিমচন্দ্রের প্রথম উপন্যাসের নাম=দুর্গেশনন্দিনী (১৮৬৫)।

৩. বঙ্কিমচন্দ্রের সম্পাদিত পত্রিকার নাম = “বঙ্গদর্শন”।

৪. বঙ্কিমচন্দ্র ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে কাজে যোগ দেন = ১৮৫৮ সালে।

 

v  কাজী নজরুল ইসলাম

১. বিবিসির বাংলা বিভাগ পরিচালিত জরিপে (২০০৪) সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালির তালিকায় নজরুল ইসলামের স্থান = ৩য়।

২. কাজী নজরুল ইসলামের ছদ্মনাম = ধুমকেতু।

৩. তিঁনি গ্রামের মক্তব থেকে পাশ করেন = ১০ বছর বয়সে।

৪. ব্রিটিশ সরকার কর্তৃক কাজী নজরুল ইসলামের বাজেয়াপ্তকৃত গ্রন্থসমূহঃ ৫ টি (চন্দ্রবিন্দু, যুগবাণী, প্রলয়শিখা, বিষের বাঁশি, ভাঙ্গার গান)

৫. যে কবিতা রচনা করে তিঁনি কারাবরণ করেন = আনন্দময়ীর আগমনে, বিদ্রোহীর কৈফিয়ত।

৬. বাংলা ভাষায় প্রথম ইসলামী গান ও গজল রচনা করেন=কাজী নজরুল ইসলাম।

৭. তিঁনি ১ম বিশ্বযুদ্ধে যোগ দেন = ১৯১৭ সালে (৪৯ নং বাঙালি পল্টনে। তিঁনি তখন ১০ম শ্রেণিতে পড়তেন)।

৮. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাজী নজরুল ইসলামকে উৎসর্গ করেন=বসন্ত নাটক।

৯. নজরুল ইসলাম রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে উৎসর্গ করেন=সঞ্চিতা কাব্যগ্রন্থ।

১০. নজরুল ইসলাম বাকশক্তি হারান = ৪৩ বছর বয়সে, ১৯৪২ সালে।

১১. কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পর স্থায়ী ভাবে ভারত থেকে ঢাকায় আনা হয় = ১৯৭২ সালে।

১২. কাজী নজরুল ইসলামকে জাতীয় কবি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়=১৯৭৪ সালে।

১৩. কাজী নজরুল ইসলামকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ডি.লিট.উপাধি দেয়=১৯৭৪ সালে।

১৪. কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলাদেশের “নাগরিকত্ব” প্রদান করা হয়=১৯৭৬ সালে।

১৫. কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলাদেশ সরকার “একুশে পদক” দেয়=১৯৭৬ সালে।

 

v  রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

. বিবিসির বাংলা বিভাগ পরিচালিত জরিপে (২০০৪) সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালির তালিকায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্থান = ২য়।

২. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উপাধি = বিশ্বকবি।

৩. বাংলা ছোট গল্পের জনক কে = রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

৪. “বনফুল” প্রকাশের সময় কবির বয়স ছিল = ১৫ বছর।

৫. কাজী নজরুল ইসলাম রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে উৎসর্গ করেন= সঞ্চিতা কাব্যগ্রন্থ।

৬. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কাজী নজরুল ইসলামকে উৎসর্গ করেন = “বসন্ত” নাটক।

৭. স্ত্রী মৃণালিনী দেবীর মৃত্যুশোকে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচনা করেন = “স্মরণ” শোককবিতা।

৮. রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত উপন্যাস “শেষের কবিতা” প্রকাশিত হয় = ১৯২৯ সালে।

৯. প্রবন্ধ সাহিত্য “সভ্যতার সংকট” প্রকাশিত হয় = ১৯৪১ সালে রবীন্দ্রনাথের জন্মদিনে।

১০. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিখ্যাত কাব্যগ্রন্থ “গীতাঞ্জলি” প্রকাশিত হয়=১৯১০ সালে।

১১. “গীতাঞ্জলি” কাব্যগ্রন্থের ইংরেজিতে অনুবাদকৃত গ্রন্থের নাম = Gitanjali: Song Offerings

১২. “গীতাঞ্জলি” কাব্যগ্রন্থের ইংরেজিতে অনুবাদ করেন = W. B. Yeats|

১৩. Gitanjali: Song Offerings প্রকাশিত হয় = ১৯১২ সালের নভেম্বর মাসে।

১৪. “গীতাঞ্জলি” কাব্যগ্রন্থের জন্য রবীন্দ্রনাথ পান = নোবেল পুরষ্কার।

১৫. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর নোবেল পুরষ্কার পান = ১৯১৩ সালে

১৬. ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে ডি.লিট.ডিগ্রী প্রদান করে = ১৯৩৬ সালে।

১৭. অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে ডি.লিট.ডিগ্রী প্রদান করে = ১৯৪০ সালে।

১৮. ব্রিটিশ সরকার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে যে উপাধি দেন = “নাইট” উপাধি।

১৯. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর “নাইট” উপাধি বর্জন করেন = ১৯১৯ সালে (জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে)।

 

v  শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

১. বাংলা সাহিত্যে কথা সাহিত্যিক বলে স্বীকৃত = শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়।

২. শরৎচন্দ্রের ছদ্মনাম = শ্রীকান্ত।

৩. শরৎচন্দ্রের ১ম রচনাঃ “মন্দির” গল্প (১৯০৩)।

৪. শরৎচন্দ্রের “মন্দির” গল্পটি কুন্তলীন পুরষ্কার অর্জন করে।

৫. শরৎচন্দ্রের উপন্যাসের উপজীব্য বিষয় = সমাজের নিচু তলার মানুষের জীবন।

৬. শরৎচন্দ্র ডি.লিট.উপাধি পান=ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৩৬ সালে।

৭. শরৎচন্দ্রের “শ্রীকান্ত” উপন্যাসটি ইংরেজি ও ইতালীয় ভাষায় অনূদিত হয়।

৮. শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়কে রবীন্দ্রনাথ উৎসর্গ করেন = “কালের যাত্রা” নাটকটি।

৯. শরৎচন্দ্র মৃত্যুবরণ করেন = ১৯৩৮ সালের ১৬ই জানুয়ারি কলকাতার পার্ক নার্সিং হোম – এ

 

v  প্রমথ চৌধুরী

১. বাংলা সাহিত্যে চলিত গদ্য রীতির প্রবর্তক=প্রমথ চৌধুরী (ছদ্মনাম- বীরবল)।

২. প্রমথ চৌধুরী সম্পাদনা করেছেন = ২ টি পত্রিকার (ভারতী ও সবুজপত্র)।

৩. বাংলা ভাষায় চলিত গদ্য রীতির ১ম মুখপত্র = “সবুজপত্র” পত্রিকা।

৪. “সবুজপত্র” পত্রিকাটি প্রকাশিত হয় = ১৯১৪ সালে।

৫. প্রমথ চৌধুরীর প্রবন্ধঃ চার ইয়ারি কথা (১৯১৬), রায়তের কথা (১৯২৬), নানা কথা (১৯১৯), নানা চর্চা (১৯৩২), প্রবন্ধ সংগ্রহ, বীরবলের হালখাতা (১৯১৬), তেল-নুন-লকড়ি (১৯০৬)।

 

v  বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন

১. মুসলিম নারী জাগরণের পথিকৃৎ = বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন।

২. বেগম রোকেয়ার স্বামীর নাম = সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন।

৩. বেগম রোকেয়ার লেখা প্রকাশিত হতো = মিসেস আর.এস.হোসেন নামে।

৪. তাঁর অসাধারণ কীর্তি = মুসলমান মেয়েদের জন্য “সাখাওয়াত মেমোরিয়াল হাই স্কুল” প্রতিষ্ঠা।

৫. তাঁর রচিত ইংরেজি গ্রন্থের নাম = Sultanas Dream|

৬. তাঁর বিখ্যাত গ্রন্থ = অবরোধবাসিনী (১৯২৮)।

৭. বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের গ্রন্থসমূহ = অবরোধবাসিনী, সুলতানার ¯^cœ, ডিলিসিয়া হত্যা, পদ্মরাগ, মতিচুর।

৮. বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের প্রথম গ্রন্থের নাম = মতিচুর (১ম খণ্ড ১৯০৪ সালে এবং ২য় খণ্ড ১৯২২ সালে প্রকাশিত)।

৯. বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের জন্ম = ১৮৮০ সালের ৯ই ডিসেম্বর রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার পায়রাবন্দ গ্রামে।

 

v  সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ

১. বাংলাদেশের কথা সাহিত্যকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করার পথিকৃৎ = সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ।

২. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর কর্মজীবন শুরু হয় = কলকাতায় সাংবাদিক হিসেবে।

৩. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর উপন্যাসঃ লালসালু, চাঁদের অমাবস্যা (১৯৬৪), কাঁদো নদী কাঁদো (১৯৬৮)।

৪. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর গল্পগ্রন্থঃ নয়নচারা (১৯৫১), দুই তীর (১৯৬৫), গল্পসমগ্র (১৯৭২)।

৫. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহর নাটকঃ বহিপীর (১৯৬০), সুরঙ্গ (১৯৬৪), তরঙ্গভঙ্গ (১৯৬৬)।

৬. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ মৃত্যুবরণ করেন = ১৯৭১ সালের ১০ই অক্টোবর প্যারিসে।

৭. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ আদমজী পুরষ্কার পান = “দুই তীর ও অন্যান্য গল্প” রচনা করার জন্য (১৯৬৫ সালে)।

৮. তাঁর প্রথম প্রকাশিত গল্পগ্রন্থ = “নয়নচারা” (১৯৫১)।

৯. তাঁর বিখ্যাত উপন্যাস = লালসালু (১৯৪৮)।

১০. “লালসালু” উপন্যাসটি অনূদিত হয় = ২ টি ভাষায় (ইংরেজি ও ফারসি)।

১১. “লালসালু” উপন্যাসটির ইংরেজি অনুবাদকৃত গ্রন্থের নাম = Tree Without Roots (১৯৬৭)।

১২. “লালসালু” উপন্যাস রচনা করে সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন।

১৩. সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ বাংলা একাডেমী পুরষ্কার পান = ১৯৬১ সালে।

 আরো পড়ুনঃ গণিতের শর্টকাট টেকনিক পিডিএফ ডাউনলোড

v  আবুজাফর শামসুদ্দীন

১. আবুজাফর শামসুদ্দীন সাহিত্য সাধনায় ব্রতী ছিলেন = ৫০ বছর।

২. “ভাওয়াল গড়ের উপাখ্যান” উপন্যাসটি প্রকাশিত হয় = ১৯৬৩ সালে।

৩. তিঁনি বাংলা একাডেমী পুরষ্কার পান = ১৯৬৮ সালে।

৪. আবুজাফর শামসুদ্দীন মৃত্যুবরণ করেন = ২৪শে আগস্ট ১৯৮৮ সালে ঢাকায়।

 

v  জহির রায়হান

১. জহির রায়হানের জন্ম = ১৯৩৩ সালে ফেনী জেলার মজুপুর গ্রামে।

২. জহির রায়হানের আসল নাম = মোহাম্মদ জহিরুল্লাহ।

৩. তিঁনি বি.এ.(অনার্স) ডিগ্রী লাভ করেন = ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে (১৯৫৮)।

৪. পরবর্তী জীবনে তিঁনি খ্যাতি অর্জন করেন = চলচ্চিত্রকার হিসেবে।

৫. জহির রায়হানের ১ম গল্পগ্রন্থ = সূর্যগ্রহণ (১৯৫৫)।

৬. তাঁর চলচ্চিত্রঃ লেট দেয়ার বি লাইট, স্টপ জেনোসাইড, জীবন থেকে নেয়া, হাজার বছর ধরে।

৭. “আরেক ফাল্গুন” উপন্যাসের প্রেক্ষাপট = ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন।

৮. জহির রায়হানের যে চলচ্চিত্রটিকে মুক্তিযুদ্ধের জীবন্ত দলিল বলা হয় = স্টপ জেনোসাইড।

৯. তিঁনি নিখোঁজ হন = ১৯৭২ সালের ৩০শে জানুয়ারি মিরপুর থেকে তিঁনি নিখোঁজ হন।

 

v  হুমায়ূন আহমেদ

১. তাঁর পৈত্রিক নিবাস = কুতুবপুর গ্রাম, কেন্দুয়া থানা, নেত্রকোনা।

২. হুমায়ূন আহমেদ মূলত পরিচিত = ঔপন্যাসিক হিসেবে।

৩. হুমায়ূন আহমেদের – ১ম প্রকাশিত উপন্যাস – নন্দিত নরকে।

৪. তাঁর অপূর্ব সাহিত্যকর্ম = “শঙ্খনীল কারাগার”।

৫. তাঁর সৃষ্ট আশ্চর্য চরিত্র = “মিসির আলী”।

৬. মিসির আলীর আখ্যান নিয়ে লেখা গ্রন্থ = “মিসির আলী অমনিবাস”।

৭. তাঁর পরিচালিত “আগুনের পরশমণি” ছবিটি ৮ টি শাখায় চলচ্চিত্র পুরষ্কার পেয়েছে।

৮. তিঁনি “একুশে পদক” পান = ১৯৯৪ সালে।

৯. হুমায়ূন আহমেদ রসায়ন বিভাগের উপর অনার্স ও মাস্টার্স পরীক্ষা দেন।

১০. হুমায়ূন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন

১১. হুমায়ূন আহমেদ আমেরিকার নর্থ ডাকোটা স্টেট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পলিমার কেমিস্ট্রি বিষয়ের উপর পি.এইচ.ডি.ডিগ্রী লাভ করেন।

১২. হুমায়ূন আহমেদ মৃত্যুবরণ করেন = ১৯শে জুলাই ২০১২ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে বেলভিউ হাসপাতালে

v  মাইকেল মধুসূদন দত্ত

১. মাইকেল মধুসূদন দত্ত = আধুনিক বাংলা কাব্যের জনক; আধুনিক বাংলা নাটকের পথিকৃৎ; অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক; চতুর্দশপদী কবিতাবলির জনক; বাংলা সাহিত্যের একমাত্র মহাকাব্য রচয়িতা; বাংলা সাহিত্যের প্রথম সার্থক নাটক রচয়িতা।

২. বাংলা সাহিত্যের ১ম সার্থক নাটকের নাম = শর্মিষ্ঠা (১৮৫৯)।

৩. বাংলা সাহিত্যের ১ম সার্থক ট্রাজেডি নাটকের নাম = কৃষ্ণকুমারী।

৪. মাইকেল মধুসূদন দত্তের উপাধি = মাইকেল

৫. মাইকেল মধুসূদন দত্তেরঃ

১ম প্রকাশিত গ্রন্থ – Captive Lady (১৮৪৯)।

১ম কাব্য – Captive Lady (১৮৪৯)।

১ম নাটক – শর্মিষ্ঠা (১৮৫৯)।

প্রহসন – একেই কি বলে সভ্যতা, বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ।

মহাকাব্য – মেঘনাদবধ কাব্য (১৮৬১)।

গদ্যকাব্য – হেক্টরবধ (১৮৭১) অসপমাপ্ত।

পত্রকাব্য – বীরাঙ্গনা (১৮৬২)।

ইংরেজি কাব্য – Captive Lady, Vision of the past, Rizia|

৬. বাংলা সাহিত্যে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সূচিত হয় = অমিত্রাক্ষর ছন্দ প্রবর্তনের পর।

৭. মধুসূদন দত্তের “মেঘনাদবধ কাব্য” এর কাহিনী নেয়া হয়েছে = “রামায়ণ” মহাকাব্য থেকে।

৮. মাইকেল মধুসূদন দত্তের কয়টি ভাষায় দক্ষতা ছিল? = ১৩ / ১৪ টি ভাষায়।

৯. মধুসূদন দত্তের জন্ম = ১৮২৪ সালের ২৫শে জুন যশোর জেলার সাগরদাঁড়ি গ্রামে।

১০. ইংরেজি সাহিত্যের প্রতি তাঁর তীব্র অনুরাগ জন্মে = হিন্দু কলেজে অধ্যয়ন কালে।

 আরো পড়ুনঃ  বিসিএস পরীক্ষায় আসা মানসিক দক্ষতার প্রশ্ন সমাধান

v  জসীমউদ্‌দীন

১. বাংলা সাহিত্যে জসীমউদ্‌দীনের সাধারণ পরিচয় = পল্লীকবি।

২. জসীমউদ্‌দীনের জন্ম = ১৯০৩ সালের ১লা জানুয়ারি ফরিদপুর জেলার তাম্বুলখানা গ্রামে।

৫. জসীমউদ্‌দীন কোন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বি.এ.পাশ = কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে

৬. তিঁনি কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন? = ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে

৭. তিঁনি কত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যক্ষের কাজ=৬ বছর (১৯৩৭- ১৯৪৩)।

৮. জসীমউদ্‌দীনের ছোট বড় নানান ধরণের রচনার সংখ্যা কতটি? = ২৮ টি।

৯. জসীমউদ্‌দীনের প্রথম কাব্যগ্রন্থের নাম = “রাখালী”।

১০. জসীমউদ্‌দীনের শ্রেষ্ঠ কাব্যগ্রন্থের নাম = “নকশী কাঁথার মাঠ”।

১১. “নকশী কাঁথার মাঠ” কাব্যগ্রন্থটির ইংরেজি অনুবাদ করেন = E.M. Milford|

১২. “নকশী কাঁথার মাঠ” কাব্যগ্রন্থটির ইংরেজি অনুবাদকৃত গ্রন্থের নাম = The Field of The Embroidery Quilt|

১৪. জসীমউদ্‌দীনের একমাত্র উপন্যাসের নাম = বোবাকাহিনী (১৯৫১)।

 

v  অমিয় চক্রবর্তী

১. অমিয় চক্রবর্তী কার ব্যাক্তিগত সচিব ছিলেন? = রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের।

২. তাঁর ১ম কাব্যগ্রন্থ = খসড়া (১৯৩৮)।

৩. অমিয় চক্রবর্তী রচিত “পারাপার” ও “পালাবদল” কাব্যগ্রন্থের পটভূমি = চার মহাদেশ।

৪. তিঁনি “ইউনেস্কো পুরষ্কার” পান = ১৯৬০ সালে।

৫. তিঁনি “পদ্মভূষণ পুরষ্কার” পান = ১৯৭০ সালে।

৬. অমিয় চক্রবর্তী কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখা = Oxford University তে।

 

v  সুফিয়া কামাল

১. সুফিয়া কামালের উপাধি = জননী সাহসিকা।

২. সুফিয়া কামালের পৈত্রিক নিবাস = কুমিল্লায়।

৩. তাঁর স্বামীর নাম = সৈয়দ নেহাল হোসেন।

৪. সৈয়দ নেহাল হোসেন মারা যান = ১৯৩২ সালে।

৫. সুফিয়া কামালের একমাত্র গল্পগ্রন্থঃ কেয়ার কাঁটা (১৯৩৭)।

৬. সুফিয়া কামালের ডায়েরীঃ একাত্তরের ডায়েরী (১৯৮৯)।

৭. সুফিয়া কামালের জন্ম = ১৯১১ সালের ২০শে জুন বরিশাল জেলার শায়েস্তাবাদ গ্রামে নানার বাড়িতে তিনি জন্ম গ্রহণ করেন।

 

v  ফররুখ আহমদ

১. ফররুখ আহমদ যে দশকের কবি = চল্লিশের।

২. ফররুখ আহমদের জন্ম = ১৯১৮ সালে মাগুরা জেলার মাঝআইল গ্রামে।

. ফররুখ আহমদ বিশ্বাসী ছিলেন = ইসলামী ঐতিহ্যের পুনুরুজ্জীবনে। একারণে তাঁকে ইসলামী রেনেসাঁর কবি বলা হয়।

৪. ফররুখ আহমদেরঃ

১ম কাব্যগ্রন্থ – সাত সাগরের মাঝি (১৯৪৪)।

কাব্যনাট্য – নৌফেল ও হাতেম (১৯৬১)।

কাহিনীকাব্য – হাতেমতায়ী।

শিশু সাহিত্য – পাখির বাসা।

কাব্যগ্রন্থ – সাত সাগরের মাঝি, সিরাজুম মুনীরা, মুহূর্তের কবিতা।

৫. “মুহূর্তের কবিতা” ফররুখ আহমদের = সনেট সংকলন।

৬. তিঁনি ইউনেস্কো পুরষ্কার পান = ১৯৬৬ সালে, শিশু সাহিত্য “পাখির বাসা” রচনার জন্য।

 

v  সৈয়দ আলী আহসান

১. আলী আহসানের অনুবাদগ্রন্থঃ হুইটম্যানের কবিতা (অনুবাদকৃত কাব্যগ্রন্থ)

২. তিঁনি বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীতের ইংরেজি অনুবাদ করেন।

৩. সৈয়দ আলী আহসান মৃত্যুবরণ = ২০০২ সালের ২৫শে জুলাই।

 

v  সুকান্ত ভট্টাচার্য

১. সুকান্ত ভট্টাচার্যের জন্ম = ১৯২৬ সালে কলকাতায় নানার বাড়িতে।

২. তাঁর পৈত্রিক নিবাস = গোপালগঞ্জ জেলার কোটালিপাড়া থানার উনশিয়া গ্রামে।

৩. কত বছর বয়সে তিঁনি কবিতা লেখা শুরু = ৯ বছর বয়সে।

৪. তাঁর উপাধি ছিল = কিশোর কবি।

৫. সুকান্ত ভট্টাচার্যের রচনা সমগ্রে যে কবির প্রভাব লক্ষ্য করা যায় = কাজী নজরুল ইসলামের

৬. কাজী নজরুল ইসলামের ধারায় সুকান্ত ভট্টাচার্য যে ধরণের কবি ছিলেন = বিদ্রোহী কবি।

৭. সুকান্ত ভট্টাচার্য মৃত্যুবরণ = ১৯৪৭ সালে মাত্র ২০ বছর ৯ মাস বয়সে।

৮. সুকান্ত ভট্টাচার্য কোন রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ = যক্ষ্মা রোগে।

v  শামসুর রাহমান

১. শামসুর রাহমানের জন্ম = ১৯২৯ সালে ঢাকা জেলায়।

২. তাঁর পৈত্রিক নিবাস = নরসিংদী জেলার পাড়াতলী গ্রামে।

৩. কর্মজীবনে শামসুর রাহমান ছিলেন = সাংবাদিক।

৪. কয়টি পত্রিকায় তিঁনি সাংবাদিক হিসেবে কাজ = ২ টি (মর্নিং নিউজ, দৈনিক বাংলা)।

৫. তিঁনি সম্পাদক ছিলেন = “দৈনিক বাংলা” পত্রিকার (১০ বছর সম্পাদনা করেন)।

৬. এ পর্যন্ত তাঁর কয়টি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত অয়েছে? = ৪০ টিরও বেশি।

                  ডাউনলোড করতে এখানে ক্লিক করুন
 
 Download From Google Drive 
 
Download From Yandex
 
 
 
প্রয়োজনীয় মূর্হুতে খুঁজে পেতে শেয়ার করে রাখুন.! আপনার প্রিয় মানুষটিকে “send as message”এর মাধ্যমে শেয়ার করুন। হয়তো এই গুলো তার অনেক কাজে লাগবে এবং উপকারে আসবে।

এরকম আরো গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট পড়তে নিচের                          দেওয়া লিংকে ক্লিক করুন

 
 
 
 
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments

auto ads
error: Content is protected !!